Uncategorized 

ক্রান্তিকালে আমাদের চিন্তকগণ এবং তাদের বাহাস

করোনাকালে একটা কার্টুন দৃষ্টি কেড়েছে। আমার মতে চমৎকার এই কার্টুনটি অনেক বিষয়েই চিন্তা দাবি করতে পারে। কার্টুনটি এমন, ‘লকডাউনে ইঞ্জিনিয়ার স্বামীকে সব্জি কাটতে দিয়েছেন তার স্ত্রী। ইঞ্জিনিয়ার বলে কথা। স্বামী বেচারা তার সব যন্ত্রপাতি নিয়ে রীতিমত ইঞ্চি ইঞ্চি হিসাব করে মনোযোগ দিয়ে সব্জি কাটতে বসে গেছেন।’ অর্থাৎ তিনি তার পেশা অনুযায়ী মাপজোক করে সব্জি কাটার কোশেস করছেন। অথচ দা বা চাকু দিয়ে সহজেই সব্জি কাটা যেতো তা তার মাথায় ঢোকেনি। কার্টুনটা দেখে অনেকেই হয়তো হালকা হেসেছেন। কিন্তু গভীরভাবে চিন্তা করেননি। দেখেননি সহজ ব্যাপারটি সেই কথিত মেধাবী ইঞ্জিনিয়ারের মাথায় ঢুকছে না।…

বিস্তারিত
Uncategorized দিনলিপি 

আজ একুশে, শহীদ দিবস : আজ আমার ফাগুন চলে যাবারও নয় মাস

একুশে ফেব্রুয়ারি আনন্দ না শোকের! মাঝেমধ্যে বিভ্রান্ত হয়ে উঠি। একুশের আগের বিকেলে মোড়ে মোড়ে ফুল বিক্রির সমারোহ। ভিন্নজনের সাথে আলাপে যতটা জানা গেছে, রাজধানী থেকে মফস্বল সব জায়গাতে একই অবস্থা। নিজের চোখে না দেখলে বোধহয় একটু দ্বিধা থেকে যেতো। ফুলের দোকানে বড় বড় গোলাপের পাশাপাশি ফুলের ক্রাউন। প্রশ্ন করলাম বেচা-বিক্রি কেমন? বললো, ভালো। ফুলের ক্রাউন সবচেয়ে বেশি বিক্রি হচ্ছে। ওই যে, উৎসবে মেয়েরা মাথায় যেটা দেয়। সাথে গোলাপ, যা সাধারণত বান্ধবীদের জন্যে। বিস্মিত হতে গিয়েও ভালো লাগলো ফুল বিক্রেতার হাসিমুখ দেখে। অন্তত এ দিনটি উপলক্ষে তার ট্যাঁকে তো কিছু টাকা…

বিস্তারিত
Uncategorized 

ফাগুন চলে যাবার ছয় মাস, বেঁচে আছি, বেঁচে থাকতে হয় বলে

শুভ্রের রূপালী দ্বীপে যাওয়া নিয়ে রাহেলা বেগমের অস্থিরতাকে অনেকেই পাগলামো ভেবে বসেন। শুভ্র বাড়ি থেকে বেরুনোর তিন ঘন্টার মধ্যেই প্রেশার বেড়ে মাথা ঘুরে গিয়েছে রাহেলা বেগমের। ব্লাড প্রেশারের অষুধ খেয়েছেন কিনা মনে করতে পারছেন না। ট্রেনে উঠার সময় শুভ্রের চোখে চশমা ছিলো না শুনে দোতলার সিঁড়ি ভেঙে উপরে উঠতেই তার দম আটকে আসতে লাগলো। যাদের সন্তান অথবা বোধ দুটোর কোনটাই নেই তাদের এমনটা পাগলামো মনে হতে পারে। কিন্তু এটা নির্ভেজাল সত্যি। হুমায়ূন আহমেদ এতটুকুও মিথ্যে লিখেননি। তিনি তার নিজের সন্তান স্নেহ আর জীবনবোধ থেকেই লিখেছেন শুভ্রের ‘রূপালী দ্বীপ’।   তবে…

বিস্তারিত
Uncategorized 

ফাগুন বাবা, বন্ধুরা ঈদে ফিরছে তুই বাড়ি ফিরবি না?

ফাগুন, তোর সব বন্ধুরা ঈদে বাড়ি ফিরছে, তুই ফিরবি না বাবা? জানি, তুই ফিরবি না। তবু ইচ্ছেতো জাগেরে বাবা। তুইও তোর বন্ধুদের সাথে ফিরে আয়। সব ইচ্ছে পূরণ হয় না তাও জানি; সৃষ্টিকর্তার সৃষ্ট নিয়মেই চলে সবকিছু। তুই ফিরলে সেই নিয়মতো উল্টে যাবে বাবা, ঈশ্বর যাবেন ভয়ানক ঝামেলায় ফেঁসে।  জানি, তুই ফিরলে ফিরতি ঈদের দু’দিন আগে। মানুষ আতংকে রয়েছে ডেঙ্গু নিয়ে। প্রতিদিন আসছে করুণতম সব মৃত্যুর খবর। দুই চলে আসতে পারতি, আমরাও চাইতাম তুই তাড়াতাড়ি চলে আয়। কিন্তু খবর ফেলে, দায়িত্ব ফেলে শুধু নিজের কথা চিন্তা করে চলে আসতি না…

বিস্তারিত
Uncategorized 

ছেলেধরা ও ডেঙ্গুর গুজব কথন এবং পাবলিকের ট্রল

চোর সন্দেহে রাজধানী ঢাকায় এক পোশাক শ্রমিককে পিটিয়ে মেরে ফেলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার পশ্চিম হাজিপাড়ায় গণপিটুনিতে মারা যায় দেলোয়ার নামের ওই শ্রমিক। বয়স হয়েছিল মাত্র পঁচিশ বছর। জীবনটা কেবল শুরু করেছিল ছেলেটা। ‘মব লিঞ্চিং’ তাকে সেখানেই থামিয়ে দিল। গাফিলতির কারণে সৃষ্ট ‘ছেলেধরা’ বিষয়ক গুজবকে যারা কেবলমাত্র ষড়যন্ত্র ছাড়া অন্যকিছু ভাবতে নারাজ, তারা সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত ‘চোর সন্দেহে গণপিটুনিতে মৃত্যু’র এই খবরকে কী বলবেন? লিখতে বসে সামাজিকমাধ্যমে ট্রল দেখলাম অনেক। ‘ছেলেধরা গুজবের মত ডেঙ্গুও গুজব’, এমনটা বলে নানাবিধ ট্রলের লক্ষ্যবস্তু হয়েছেন এক ‘দায়িত্বশীল’। স্বয়ং একজন মন্ত্রী বলেছেন, ‘রোহিঙ্গাদের মত এডিস মশাদেরও প্রজনন ক্ষমতা…

বিস্তারিত